বিদ্যুৎ পরিবহণকারী কালি: কলম দিয়েই আঁকা যাবে সার্কিট!

[ad_1]

পরিবাহী কালি প্রযুক্তি কি এবং কেনো এটি ব্যবহার করা হয়? এ সম্পর্কে কি কোনো ধারণা আছে আপনাদের?

একটু কল্পনা করুন তো, আপনার কাছে মার্কারের মতো দেখতে একটি কলম আছে এবং সেটি দিয়ে আপনি দেয়ালে একটি সার্কিট বোর্ড এঁকে নিলেন। এবার সেই পেইন্ট করা সার্কিটটিকে স্পর্শ করলেই লাইট জ্বলে উঠছে এবং বন্ধ হচ্ছে। নিশ্চয়ই মনে হচ্ছে, ধুর! এরকম হয় নাকি! জ্বি, এটা সম্ভব!

পরিবাহী কালি:

পরিবাহী কালি হচ্ছে এমন এক ধরনের কালি যার সাহায্যে বিদ্যুৎ সঞ্চালনের ক্ষমতাকে একত্রিত করে। এটি একটি ঘন, সান্দ্র এবং কালো রং যা শুকিয়ে গেলে বিদ্যুৎ পরিচালনা করতে সক্ষম। একটু ভিন্নভাবে বলতে গেলে, পরিবাহী কালি হলো এমন একটি চমৎকার আবিষ্কার যা আসলে আপনাকে কাগজ বা কাপড়ের মতো বিভিন্ন উপকরণে চলমান সার্কিট আঁকতে সাহায্য করে। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে এটি কীভাবে প্রথাগত সার্কিটগুলিকে প্রতিস্থাপন করবে তা নিয়ে ব্যাপক হাইপ তৈরি হয়েছে।

যেভাবে কাজ করেঃ

পরিবাহী কালি মূলত বিদ্যুৎ সঞ্চালন করতে সক্ষম এমন ধরনের পরিবাহী উপাদান, যেমনঃ গ্রাফাইট বা সিলভার মিশ্রিত করে তৈরি করা হয়। ধরুন, দেয়ালে একটি সার্কিট বোর্ড আঁকা হল এবং অঙ্কিত একটি লাইনের সঙ্গে এটির টাচ বোর্ড সংযুক্ত করা হলো। টাচ বোর্ড পেইন্টের এই প্যাডটিকে একটি ছোট বৈদ্যুতিক ক্ষেত্র দিয়ে চার্জ করছে এবং যখন আপনি অঙ্কনকৃত বোর্ডে স্পর্শ করবেন তখন এটি সঙ্গে সঙ্গে সেই টাচ বোর্ডে একটি সংকেত পাঠায় যা বাতিটি জ্বলতে সাহায্য করে।

বিদ্যুৎ-পরিবহণকারী-কালি

কি কি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যেতে পারে?

কারো কারো মতে, এই প্রযুক্তি বৈদ্যুতিক সার্কিটগুলিকে কাগজে বা অন্যান্য নমনীয় পৃষ্ঠে মুদ্রিত করতে সক্ষম। এটি এমনকি ইঙ্কজেট প্রযুক্তিতে ব্যবহার করা যেতে পারে। কালির পাশাপাশি, যুক্তরাজ্যের বেয়ার কন্ডাক্টিভের মতো কিছু কোম্পানি পেইন্ট পণ্য তৈরি করেছে যা বিদ্যুৎও পরিচালনা করতে পারে। এগুলো  অনেকটা পরিবাহী কালির মতো কাজ করে। পরিবাহী-পেইন্টকে আরও অনেক কাজে যেমন: কোল্ড সোল্ডার হিসেবে, PCB এবং আরও অনেক অ্যাপ্লিকেশন মেরামত করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।



মজার বিষয় হলো, “পরিবাহী কালি ব্যবহার করে ইতিমধ্যেই কিছু সাধারণ সার্কিট বোর্ড তৈরি করা হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, কিছু সাবওয়ে এবং ট্রেন সিস্টেমস ডিসপোজেবল পাসগুলিতে সার্কিটগুলি প্রিন্ট করতে সেগুলি ব্যবহার করে। এই কালির বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে আরও একটি হলো, এটি আধুনিক ট্রানজিট টিকিটে ব্যবহৃত RFID ট্যাগ প্রিন্ট করার জন্য সিলভার-ইনফিউজড ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও এগুলি প্রিন্ট করা সার্কিট বোর্ডগুলিতে সার্কিটগুলিকে উন্নত বা মেরামত করতেও ব্যবহার করা যেতে পারে। আরোও অসাধারণ কিছু ব্যবহার রয়েছে এই কালির।
যেমন এটি-

তবে পরিবাহী কালি সার্কিটের নেতিবাচক দিক হল তাদের প্রতিরোধ। যে সকল ধাতু কঠিন এবং বিশুদ্ধ সেগুলোতে প্রয়োজনের তুলনায় আরও বেশি পরিবাহী হয়, যা নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। ইউসিএসবি সাইন্স লাইন অনুসারে, “পরিবাহী কালিতে ফ্লেক্স বা পাউডার ব্যবহার করলে তাদের রোধ বাড়ে ও অতিরক্ত তাপ উৎপন্ন হয়, তাই কঠিন ও বিশুদ্ধ কপার দিয়ে তৈরি সার্কিটগুলি বৈদ্যুতিক শক্তি পরিবহণের ক্ষেত্রে আরও দক্ষ হবে এবং কম তাপ উৎপন্ন করবে”।

 

নিজস্ব প্রতিবেদক/ হৃদিতা ইফরাত

 

 

আপনার অনুভূতি কী?



[ad_2]

Source link

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap