Top 10 richest person in the world । বিশ্বের সেরা ১০ ধনী ব্যক্তি

পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি কে? সেরা ধনী তালিকা ২০২২

বলা হয়ে থাকে পৃথিবীর ধনী ১% মানুষের যত সম্পদ আছে তা পৃথিবীর বাকি ৯৯% মানুষের মোট সম্পদের চাইতেও বেশী। সাধারণ মানুষের মাঝে সেই ১ ভাগ মানুষদের নিয়ে আগ্রহের শেষ নেই।

 সেই আগ্রহের ভিত্তিতেই বিভিন্ন ওয়েবসাইট বছর বছর প্রকাশ করে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যাক্তির তালিকা। তেমনই দুইটি জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান ফোর্বস(Forbes) এর “রিয়েল টাইম বিলিয়নিয়ার” এবং ব্লুম্বার্গের(Bloomberg) এর প্রকাশিত

 “বিশ্বের ১০০ জন ধনী ব্যক্তি” নামক রিপোর্ট এর ভিত্তিতে আমরা আলোচনা করবো পৃথিবীর শীর্ষ ১০ ধনী মানুষ সম্পর্কে। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক সেই সব সিংহাসন এবং মুকুট বিহীন সম্রাটদের পরিচয় ও সম্পদ পরিমাণ।

ইilলন মাস্ক
ইলন মাস্ক সোর্সঃ

১। ইলন মাস্কঃ

আপনি যখনই এই পোস্ট টি পড়তে শুরু করেছিলেন তখনই আপনার মাথায় যে, প্রশ্নটি ঘুরপাক খাচ্ছিল তা হচ্ছে বর্তমানে ২০২২ সালে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি কে? আপনার উত্তর হচ্ছে ইলন মাস্ক।

৫০ বছর বয়সী এই দারুন প্রতিভাবান মানুষটি বর্তমানে রয়েছেন বিশ্বের সের ১০ ধনীর তালিকার ১ম নাম্বারে।

তাঁর সম্পদের পরিমাণ ২২৯ বিলিয়ন ডলার। তিনি থাকেন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে। ইলন মাস্কের আয়ের সিংহ ভাগই প্রযুক্তিখাতে । উল্লেখযোগ্য কম্পানী গুলো হচ্ছে টেসলা এবং স্পেসএক্স। বাংলাদেশের প্রেরণ করা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ও স্পেসএক্সের মাধ্যমে মহাকাশে পাঠানো হয়। অতি সম্প্রতি ২০২২ সালের এপ্রিল মাসে তিনি জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার কিনি নেন ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে।

দারুন আশাবাদী এই উদ্যোগতা মঙ্গল গ্রহে মানুষের বসতি নির্মানের চেষ্টায় আছেন । তিনি বলেন তাঁর জীবদ্দশায় তিনি যদি পৃথিবীর বাইরে মানব বসতি দেখে যেতে না পারেন তবে তা তাঁর জীবনের বড় একটা আপূর্ণতা হয়ে থেকে যাবে।

Elon Musk:

Whenever you start reading this post, the question that comes to your mind is who is the richest person in the world right now in 2022? Your answer is Elon Musk.

The 50-year-old is currently the No. 1 richest person in the world.

His net worth is ৯ 229 billion. He lives in Texas, USA, the richest country in the world. The lion’s share of Elon Musk’s income is in the technology sector. Notable companies are Tesla and SpaceX. Bangabandhu sent by Bangladesh was sent into space through Satellite and SpaceX. Most recently, in April 2022, he bought the popular social networking site Twitter for 44 billion.

This optimistic entrepreneur is trying to build a human settlement on Mars. He says that in his lifetime, if he could not see the human settlement outside the earth, it would be a big fulfillment of his life.

২। জেফ বেজোসঃ

বিশ্বের ধনী ব্যক্তির তালিকায় জেফ বেজোসকে পিছনে ফেলে কিছুদিন আগেই এক নাম্বারে উঠে এসেছেন ইলন মাস্ক।

বিশ্বের ২য় ধনী জেফ বেজোস, বয়স ৫৮ , আমেরিকার সিএটেল এর বাসিন্দা।

jeff bezos
জেফ বেজোস
সোর্স:

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ইকমার্স ওয়েবসাইট এমাজনের উদ্যোক্তা ও সিইও জেফ বেজোস কিছুদিন আগেও ছিলেন পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। তার মোট সম্পদের পরিমাণ  ১৯৫ বিলিয়ন ডলার। আজকের ডলারের রেট অনুযায়ী ১ বিলিয়ন ডলার = ৮৪,৭৩৭,৫১০,০০০.০০ টাকা।এবার নিজে তার অর্থের পরিমাণ বের করে ফেলুন। 

জেফ এমাজন শুরু করেন তার বেডরুমে। এমাজন প্রথমে একটা অনলাইন ভিত্তিক বই বিক্রির দোকান ছিল। আজকে সেখান থেকেই জেফ পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী মানুশে পরিনত হয়েছেন। এমাজন ছাড়াও জেফ বেজোসের আয়ের উৎসের মধ্যে রয়েছে তার আরো দুইটি প্রতিষ্ঠান “ব্লু অরিজিন” এবং “দ্যা ওয়াশিংটন পোস্ট”। জেফ এর আয়ের শুরুটা যেমন হয়েছে অনলাইন শপিং সাইট থেকে, তেমনি বাংলাদেশের বিভিন্ন তরুণ উদ্যোগতারা শুরু করেছেন বিভিন্ন অনলাইন শপিং সাইট। বাংলাদেশের সেরা ১০ টি অনলাইন শপিং সাইট সম্পর্কে জানতে পারেন লিংকে ক্লিক করে।

Jeff Bezos

Jeff Bezos, the founder and CEO of Amazon, the world’s largest ecommerce website, was recently the richest man in the world. Its total assets amount to বিল 195 billion. According to today’s dollar rate, 1 billion dollars = 74,636,510,000.00 rupees. Now find out the amount of money yourself.

Jeff Amazon started in his bedroom. Amazon was originally an online bookstore. Today, Jeff has become the richest man in the world. In addition to Amazon, Jeff Bezos’s other sources of income are Blue Origin and The Washington Post. Just as Jeff’s income started from online shopping sites, so did various young entrepreneurs in Bangladesh start various online shopping sites. You can find out about the top 10 online shopping sites in Bangladesh by clicking on the link.

৩। বার্নার্ড আর্নল্টঃ

বিশ্বের সবথেকে ধনী মানুষদের তালিকায় ৩য় স্থানে আছেন ফ্রান্সের প্যারিস থাকা বিশ্বের খ্যাতনামা ফ্যাশন প্রতিষ্ঠান লুই ভিটনের সি ই ও আর্নল্ট । তাঁর এবং পরিবারের মোট সম্পদের পরিমাণ ১৬৯ বিলিয়ন ডলার।

তাঁর আয়ের বিভিন্ন উৎস রহেছে এর মাঝে সিংহ ভাগ আসে কসমেটিক্স এবং ফ্যাশন নির্ভর ব্যাবসা থেকে। তিনি তার জীবনের প্রথমে একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। এরপর নিজের পরিবারের ব্যবসায় ডিরেক্টর পদে অংশগ্রহন করে আজকে বর্তমান পৃথিবীর সেরা ধনীদের  একজন।

Bernard Arnold:

Arnold, CEO of Louis Vuitton, a world-renowned fashion company based in Paris, France, is ranked 3rd on the list of richest people in the world. He and his family have a combined net worth of 189 billion.

Her main source of income is from the cosmetics and fashion dependent business. He was a civil engineer early in his life. He then became one of the richest men in the world today.

৪। বিল গেটসঃ

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের মোট সম্পদের পরিমাণ  ১৪৮ বিলিয়ন ডলার নিয়ে আছেন শীর্ষ ধনীর তালিকায় চার নাম্বারে।টেকনোলজি বিপ্লবের প্রথম দিকে তিনি বিশ্বের শীর্ষ ধনীর পদটি দখল করে ছিলেন অনেক দিন।

এখনও সবচেয়ে ধনী মানুষের নাম আসলে সবার মুখে বিল গেটস এর নাম চলে আসে। ১৯৭৫ সালে বিল গেটস ও পল এলেন মাইক্রোসফট শুরু করেন। তিনি ২০১৪ সাল পর্যন্ত মাইক্রোসফটের ম্যানাজিং ডিরেক্টর পদে ছিলেন। এখন তিনি একজন বোর্ড মেম্বার হিসেবে আছেন। তিনি এখন অনেক রকম সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত আছেন।

Bill Gates:

Bill Gates, the founder of Microsoft, the world’s largest software company, is at number four on the list of the richest people with a net worth of ৮ 148 billion.


The name of the richest man is still Bill Gates. Bill Gates and Paul Allen started Microsoft in 1975. He was the Managing Director of Microsoft until 2014. He is now a board member. He is now involved in a variety of social activities

৫। মার্ক জুকারবার্গঃ

জুকারবার্গ ফেসবুকের একজন উদ্যোক্তাদের মধ্যে একজন। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১৩০ বিলিয়ন ডলার। মার্ক জুকারবার্গ সবচেয়ে কম বয়সে বিলিয়নিয়ার হওয়া মানুষ দের মধ্যে একজন।

তার কলেজের ক্যাম্পাসে ছোট পরিসরে তিনি ফেসবুক চালু করেন আজকে ফেসবুক  বিলিয়ন ডলারের কোম্পানি হয়ে গিয়েছে।

Mark Zuckerberg:


Zuckerberg & nbsp; is one of the pioneers of Facebook. Its total assets amount to বিল 130 billion. Mark Zuckerberg is one of the youngest billionaires.

He launched Facebook on a small scale on his college campus. Today, Facebook has become a billion dollar company.

৬। ল্যারি পেজঃ

১১৫ বিলিয়ন ডলার নিয়ে আছেন ধনীদের তালিকায় ৬ নাম্বারে । তাঁর প্রতিষ্ঠান মানুষের কাছে যতটা পরিচিত তিনি ঠিক ততটাই আড়াল রেখেছেন নিজেকে।

ক্যালিফরনিয়া নিবাসী এই তরুণ উদ্যোগতা তাঁর বন্ধুকে নিয়ে গড়ে তুলেছিলেন আপনাদের সবার পছন্দের “গুগল” । ১৯৯৫ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি এবং তাঁর বন্ধু সার্জি ব্রায়ন একটি সার্চ ইঞ্জিন তৈরির পরিকল্পনা করেন। ২০০১ সাল পর্যন্ত তিনি গুগলের সিইওর দায়িত্ব পালন করেন।

Larry Page:

৫ 115 billion is the 7th richest person in the world. He hides himself as much as his organization is known to the people.

This young entrepreneur from California developed his favorite “Google” with his friend. While studying at university in 1995, he and his friend Sergey Bryan planned to build a search engine. Until 2001, he was the CEO of Google.

৭। সার্জি ব্রায়ান

১১১ বিলিয়ন ডলার নিয়ে সার্জি ব্রায়ান বিশ্বের সপ্তম শীর্ষ ধনী মানুষ। তিনি গুগলের  সহ-প্রতিষ্ঠাতা। ১৯৯৫ সালে স্টেন ফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকা কালীন সময় বন্ধু ল্যারি পেজের সাথে মিলে প্রতিষ্ঠত করেন একটি ওয়েব সার্চ ইঞ্জিন।

সেই সার্চ ইঞ্জিন আজকে এলফাবেট প্রজেক্টের আন্ডারে “গুগল” নামে পরিচিত । এই প্রজেক্টে আরো রয়েছে ইউটিউব , জিমেইল, সহ আরো অনেক সেবা। তাছাড়া তাঁর প্রতিষ্ঠান গুগল পিক্সেল নামে মোবাইল ফোন লঞ্জ করে।

Sergey Bryan


Sergei Bryan is the seventh richest man in the world with 111 billion. He is Google & nbsp; Co-founder. In 1995, while at Stanford University, he co-founded a web search engine with his friend Larry Page.

That search engine is now known as “Google” under the Alphabet project. This project also has many more services including YouTube, Gmail. Moreover, his company is called Google Pixel Mobai

৮। ওয়ারেন বাফেটঃ ওয়ারেন বাফেট এই সময়ের একজজ জনপ্রিয় উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ী ও বক্তা। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১০৫ বিলিয়ন ডলার। তিনি মাত্র ১১ বছর বয়সে তার প্রথম বিনিয়োগ করেন। তার এখন ৬০ টিরও বেশী কোম্পানি রয়েছে।

Larry Ellison

৯। ল্যারি এলিসনঃ

ল্যারি এলিসন সফটওয়্যার কোম্পানি ওরাকলের নির্মাতা ও প্রাক্তন সি ই ও। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১০১ বিলিয়ন। তার কোম্পানি অনেক সফটওয়্যার বানিয়ে বিশ্বকে টেকনোলজির দিক থেকে অনেক দূরে নিয়ে এসেছে।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সি আই এর ডাটাবেজও এলিসনের তৈরি করা। তিনি একজন বড় মনের দাতাও বটে। তিনি পড়াশোনার উন্নতির জন্য কোটি কোটি টাকা দান করেছেন।

Larry Ellison:

Larry Ellison is the creator and former CEO of software company Oracle. Its total assets amount to 101 billion. His company has taken the world a long way in technology by creating a lot of software.


Allison also created a database for the CIA. He is also a great benefactor. He has donated billions of rupees to improve education.

১০। স্টিভ বল্মারঃ

আমেরিকার মিশিগানে থাকা এই ব্যাবসায়ী রয়েছেন ধনীদের তালিকায় দশম অবস্থানে আছেন ৯৮ বিলিয়ন সম্পদ নিয়ে। বিভিন্ন ব্যাবসার সাথে সংযুক্ত থাকার পাশাপাশি তিনি মাইক্রোসফটের একজন ইনভেস্টর । তিনি মাইক্রোসফটে  সাবেক সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এই হচ্ছে বর্তমানে বিশ্বের সের ১০ ধনী মানুষের তালিকা ২০২২। এবং তাদের সম্পর্কে সামান্য পরিচিতি। তাদের জীবনের অনুপ্রেরণা মূলক গল্প , তাদের মোটিভেশনাল উক্তি , এবং জীবনী আমরা সাইটে প্রকাশ করছি। যা আপনারা উপরের লিংক গুলোতে পাবেন।

Steve Ballmer:

The Michigan-based businessman is the tenth richest man in the world with a fortune of ৮ 96 billion. In addition to being involved in various businesses, he is an investor in Microsoft. He is the former CEO of Microsoft.

This is currently the list of the 10 richest people in the world 2022. And little acquaintance about them. Inspiring stories of their lives, their motivational quotes, and biographies we are publishing on the site. Which you will find in the links above.


Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap